অরুণ জেটলি স্টেডিয়াম, দিল্লি তে আজ বাংলাদেশ ভারত সফর এর ১ম টি-২০ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।টস এ জিতে বল করার সিদ্ধান্ত নেই বাংলাদেশ। ভারতের সাথে টি-২০ ইতিহাস এ ভারত এর পরাজয় হয়নি ।পরাজয় এর সেই গ্লানি মুছে জয় এবার হল বাংলাদেশ এর।

টস এ হেরে ব্যাট করতে নামে ভারত। মাঠে নেমেই তারা তাদের ভালোটা দিয়ে শুরু করে। ১ম বলে রহিত শার্মার ব্যাট এ ৪ রান এর স্কোর দিয়ে শুরু হয় ভারত এর ইনিংস।কিন্তু রহিত তার সেই দুদান্ত পারফমেন্স বেশি ক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি। সাইফুল এর ওভার এ ১ম ওভার এর শেষ বলে মাঠ ছেড়ে যেতে হয় তাকে। ৫ বল খেলে ৯ রান করে মাঠ ছাড়তে হয় তাকে।ম্যাচ এর শুরুতে ১ম ওভার এটা বলে যেতেই পারে ভারত এর কাছে একটা ধাক্কা।রহিত এর উইকেট বাংলাদেশ কে কিছুটা হলেও আশা দিয়েছে। কিন্তু ভারত যেন সেটা মানতে রাজি নয়।শেখর ধাওয়ান তার সেরা টা দিয়ে খেলেছেন মাঠে।৪ টি বাওনডারি তে মোট করেন ৪১ রান। ৪২ বলে ৪১ রান করেন তিনি। কিন্তু বাংলাদেশ ও হাল ছাড়তে নারাজ।৬ষ্ঠ ওভার এ আমিনুল এর বলে লোকেস রাহুল ১৭ বল খেলে ১৫ রান করে আউট হয়।এর পর বাংলাদেশ এর বোলার দের কাছে ভারত এর কেও আর তাদের সেরা টা দেখাতে পারেনি। কিন্তু তবুও বলা যাই তারা তাদের সেরা টা দিয়ে ২০ ওভার এ ৬ উইকেট এর বিনিময়ে ১৪৮ রান করে। এই ১৪৮ রানে শেখর ধাওয়ান অনেকটা সহযোগিতা করেছে। তিনি তার সেরা টা দিয়ে খেলেছে।

কিন্তু বাংলাদেশি বোলার রাও হাল ছাড়তে নারাজ। তারা তাদের সেরা টা দিয়ে বল করে।শাইফুল ইসলাম ৪ ওভার বল করে ৩৬ রানের বিনিময়ে ২টি উইকেট নেন। কিন্তু আমিনুল ইসলাম তার সব চেয়ে সেরা টা দিয়ে আজকে বল করেন। ৩ ওভার এ ২২ রানের বিনিময়ে ২টি উইকেট নেনে তিনি।কিন্তু তাও ভারত তাদের সেরা টা দিয়ে খেলেন পূরো ম্যাচ এ।

১৪৯ রানের টার্গেট এ ব্যাট করতে নামে বাংলাদশ। শুরুটা বাংলাদেশ এর ও দেখার মত ছিলো। কিন্তু তারা সেটা ধরে রাখতে পারেনি। সেটা হতে পারে ভারত এর বোলারদের জন্য বা বাংলাদেশ এর ব্যাটসম্যান দের কিছু ভুল।আর সেই জন্য ১ম ওভার এর ৫ম বলে ডিপক চাহার এর বলে ৭ রান করে আউট হয় বাংলাদেশ এর ওপেনার লিটন দাস। কিন্তু মাহমুদ নাঈম ও সৌম্য সরকার প্রথমের সেই হতাসা কাটিয়ে তাদের সেরা টা দিয়ে শুরু করে। কিন্তু ভারত এর বোলাররা সেটা বেশি ক্ষণ ধরে রাখতে দেয়নি।যুজবেন্দ্র চাহাল এর বলে ৭ম ওভার এ আরো একটি উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ২৮ বল খেলে ২৬ রান করে মাঠ ছেড়ে যেতে হয় মাহমুদ নাঈম কে।এর পর সৌম্য সরকার ও মুসফিকুর রহিম অনর্বন্ত একটি ম্যাচ খেলেন।দুইজনে তাদের সেরাটা দিয়ে খেলেন। কিন্তু ১৬ ওভার এ খলিল আহমেদ এর বলে আউট হয় তিনি।৩৫ বল খেলে ৩৯ রান করে মাঠ ছাড়তে হয় তাকে।

কিন্তু তবুও থেমে থাকেনি বাংলাদেশ। মনোবল হারানি তারা। তারা তাদের সেরাটা ধরে রাখে।মুসফিকুর রহিম তার সেরাটা ধরে রাখে দলের জন্য।৪৩ বলে ৬০ রান করে জয় এনে দেই বাংলাদেশ। ৮ ম্যাচ পর শাকিব তামিম ছাড়া বাংলাদেশ এর জয়। শেষ বলে মাহমুদুল্লাদ ৬ মেরে ১৫ রান করে জয় এনে দেই বাংলাদেশ এর। এ জয় যেন পূর্বের পরাজয় এর  সব গ্লানি মুছে দেই।জয় হয়েছে বাংলাদেশ এর। জয় হয়েছে শাকিব তামিম এর।৭ উইকেট এর জয় লাভ করে বাংলাদেশ।

ভারত এর বোলার দের কোন কিছুই যেন থামিয়ে রাখতে পারেনি আজ বাংলাদেশ কে। জয় তারা ছিনিয়ে আনে।শাকিব তামিম এর ঘাটটি বুঝতে দেইনি কাওকে আজ বাংলাদেশ।ভারত এর বলাররা তাদের সেরা টা দিয়ে খেলেছিলো কিন্তু তবুল টাইগার দের আজ থামিয়ে রাখতে পারেনি তারা। ভারত বনাম বাংলাদেশ এর টি-২০ এর ৮ টি ম্যাচ পর এবার ভারত কে পরাজয় মেনে নিয়ে হল। টাইগার তাদের পরাজয় করে জয় ছিনিয়ে আনে।

আজ এই পর্যন্ত। বাংলাদেশ ভারত সফর এর পরর্বতী সিরিজের জন্য আমাদের সাথে থাকুন ততক্ষণ এ বিদায়। ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Your Rating:05

Thanks for submitting your comment!