বৃষ্টি বাধায় বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে ভারতের সাথে নিউজিল্যান্ড ৪৬.১ ওভারে ৫ উইকেটে ২১১ রান তুলেছে। বৃষ্টির কারনে ম্যাচ সাময়িক বন্ধ রয়েছে। নিউজিল্যান্ড ব্যাটসম্যানদের কচ্ছপ গতির ব্যাটিং ভারতকে বড় ধরনের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে পারছে না।

বৃষ্টি থামলে খেলা আবারও মাঠে গড়াবে। সেমিফাইনালের মত গুরুত্বপূর্ণ আসরে নিউজিল্যান্ড যেভাবে খেলছে সেটি তাদের প্রথম রাউন্ডের  ম্যাচগুলোতে দেখা যায়নি। ফেভারিটের মত খেলে সেমিফাইনালে উটেছে তারা। কিন্তু সেমিতে উটে যেন খেই হারিয়ে ফেলেছে গত আসরের রানার্সআপরা।

ওল্ডট্রাফোর্ডে বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে সকালে টস করতে নামে নিউজিল্যান্ড ও ভারত। ভারতের অধিনায়ক টস শুন্যে ছুড়ে মারলে নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক টস কল করেন। টস ভাগ্য নিউজিল্যান্ডের পক্ষে যায়। টসে জিতে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ভারতকে ফিল্ডিংয়ে পাঠান।

ওল্ড ট্রাফোর্ডে আজ বৃষ্টি হানা দেওয়ার আশংকা আগেই ছিল। যদিও এই পিচে বোলাররা প্রথমে সুবিধা পাবে। তবুও টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক। কারণ যেহেতু খেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে, তাই বৃষ্টির কারনে খেলার মোড় ঘুরে যেতে পারে যে কোন সময়।

কিন্তু ব্যাটিংয়ে নেমে ধীরগতির ব্যাটিং করে ভারতকে মাঝারি মানের টার্গেটের দিকে এগুচ্ছে কিউইরা। নিউজিল্যান্ডের হাতে আছে এখনও পাঁচ উইকেট। ওভার আছে প্রায় ৪টি। ভারতের লম্বা ব্যাটিং লাইনআপের বিপক্ষে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে আরও সংগ্রহ দরকার নিউজিল্যান্ডের।

তাই বৃষ্টি থামলে খেলা যদি মাঠে গড়ায়, নিউজিল্যান্ডের উচিৎ হবে দ্রুত রান তুলে ভারতকে চ্যালেঞ্জিং স্কোর ছুড়ে মারা। না হলে বিরাট কুহলিদের আটকানো মুশকিল হয়ে যাবে নিউজিল্যান্ড পেসারদের।

অবশ্য ম্যাচে বৃষ্টি হানা দিবে এমন আশংকা থেকে প্রথমে ব্যাট নেওয়া নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের ধারনা সত্যি হয়েছে। বৃষ্টির কারনে নিউজিল্যান্ডের পেসাররা ভালই সুবিধা পাবে।

ভারতের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নিউজিল্যান্ডের ওপেনার মার্টিন গাপটিল ১৪ বল ব্যয় করে মাত্র ১ রান করে বুমরার বলে আউট হয়ে যান। শুরুর ধাক্কা সামাল ভালোভাবেই দেন হেনরি নিকোলস। অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনকে সাথে নিয়ে ঘুরে দাড়ানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন তিনি। হেনরি ৫১ বল খেলে ২৮ রান করে জাদেজার বলে সাজঘরে ফিরেন।

এরপর নিউজিল্যান্ডকে পথ দেখান অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন ও অভিজ্ঞ রস টেলর। দুজনে ধীর গতির ব্যাট করে আস্তে আস্তে ম্যাচে ফিরার চেষ্টা করেন। দলীয় ১৩৪ রানের মাথায় উইলিয়ামসন ব্যাক্তিগত ৬৭ রান করে আউট হলে তাদের জুটি ভাঙ্গে।

এরপর উইকেটে এসে দ্রুতই ১২ রান করা জেমস নিশাম ফিরে যান। নিশামের পর ফিরে যান কলিন ডে গ্রান্ডহোমে। তিনি ১০ বলে ১৬ রান করে আউট হন। কিন্তু হার না মানা ৬৭ রানে এখনও অপরাজিত আছেন রস টেলর। টম লাথাম তাঁর সঙ্গ দিচ্ছেন।

বৃষ্টির পর খেলা শুরু হলে দুজন আবার ব্যাটিংয়ে নামবেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

নিউজিল্যান্ডঃ ২১১/৫ (৪৬.১ ওভার) উইলিয়ামসন ৬৭, রস টেলর ৬৭*

বুমরা ১/২৫

Mustafa Shakir
আরও পড়ুনঃ বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনালে ব্যাটিং করছে নিউজিল্যান্ড

ফক্স স্পোর্টসের একাদশে সাকিব-মুশফিক-মুস্তাফিজ

চাকরি হারালেন প্রধান কোচ স্টিভ রোডস!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Your Rating:05

Thanks for submitting your comment!