বিশ্বকাপের শিরোপার অন্যতম দাবীদার ছিল সাউথ আফ্রিকা। ফেভারিট দলের তকমা নিয়েই বিশ্বকাপে এসেছিল তারা। কিন্তু টুর্নামেন্ট শুরুর পর সেই দক্ষিন আফ্রিকাকে যেন খুজেই পাওয়া যাচ্ছিল না। সেমিফাইনালের দৌড় থেকে আগেই ছিটকে পড়েছিল। শুক্রবার শ্রীলংকাকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে সান্তনার জয় পেয়েছে তারা।

এবারের বিশ্বকাপে দক্ষিন আফ্রিকাকে নিয়ে সবাই মোটামুটি ভাল কিছুর আশা করছিল। তবে এখন পর্যন্ত ৮ ম্যাচ খেল ২ জয় আর ৫ পরাজয়ে ইতিমধ্যেই বিশ্বকাপ শেষ হয়ে গিয়েছে তাদের। আর শ্রীলংকা ও অস্ট্রেলিয়ার সাথে ম্যাচ শুধু নিয়ম রক্ষার। এই নিয়ম রক্ষার ম্যাচে আগের সাউথ আফ্রিকাকে খুজে পাওয়া গেল। শ্রীলংকাকে ৯ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে জয় তুলে নিল তারা।

হাশিম আমলা ও ফাফ ডু প্লেসিসের ব্যাটিংয়ে ভর করে ১২.৪ ওভার বাকি থাকতেই শ্রীলংকাকে ৯ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে সাউথ আফ্রিকা। ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হয়েছেন শ্রীলংকার ব্যাটিংয়ে ধস নামানো সাউথ আফ্রিকান পেসার ডওইন প্রিটোরিয়াস।

ইংল্যান্ডের স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে দশটায় বিশ্বকাপের ৩৫ তম ম্যাচে টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস। দক্ষিন আফ্রিকার পেসারদের বোলিং তোপে পড়ে মাত্র ২০৩ রানে অলআউট হয়ে যায় শ্রীলঙ্কা।

বিশ্বকাপ দৌড় থেকে আগেই বিদায় নিয়েছে দক্ষিন আফ্রিকা। নিয়ম রক্ষার ম্যাচে খেলতে নেমে শুরুতেই শ্রীলংকাকে চেপে ধরে তারা। ইনিংসের প্রথম বলেই কাগিসু রাবাদার শিকার হয়ে সাজঘরে ফিরেন শ্রীলংকান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে।

করুনারত্নের বিদায়ের পর কুশাল পেরেরা ও আভিষেক ফারনান্দোর ব্যাটে ভর করে ম্যাচে ফিরার ইঙ্গিত দিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। কিন্তু ব্যাক্তিগত ৩০ রানে ফারনান্দো আউট হলে তাদের ৬৭ রানের জুটি ভাঙ্গে। ৭২ রানে কুশাল পেরেরাও আউট হয়ে গেলে শ্রীলঙ্কা ব্যাকফুটে চলে যায়। কুশালও ব্যাক্তিগত ৩০ রান করে প্রেটোরিয়াসের বলে আউট হন।

তাদের বিদায়ের পর আর কোন শ্রীলংকান ব্যাটসম্যান ত্রিশের ঘরে পৌছাতে পারেনি। ধানাঞ্জয়া ডি সিলভা ও থিসারা পেরেরা যথাক্রমে ২৪ ও ২১ রান করে দলকে বিপদ মুক্ত করার চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু প্রোটিয়া বোলিং তোপে পড়ে তারা বেশিক্ষন টিকতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত টেনেটুনে শ্রীলঙ্কা ২০০ পার হতে পারে। ৪৯.৩ ওভার খেলে ২০৩ রানের সল্প পুজি গড়ে তুলে তারা। দক্ষিন আফ্রিকার হয়ে ডওইন প্রিটোরিয়াস ও ক্রিস মরিস ৩ উইকেট লাভ করেন।

২০৪ রানের সহজ টার্গেট খেলতে নেমে দলীয় ৩১ রানের মাথায় ওপেনার কুইন্টন ডি ককের উইকেট খোয়ায় দক্ষিন আফ্রিকা। তারপরে অধিনায়ক ফাফ দু প্লেসিসকে নিয়ে ঘুরে দাঁড়ান হাশিম আমলা। দুজনই সেঞ্চুরির কাছাকাছি চলে যান।

তবে এর আগেই সাউথ আফ্রিকা জয়ের বন্দরে পৌছে যায়। হাশিম আমলা অপরাজিত ১০৫ বলে ৫ চারের মারে ৮০ রান করেন। প্রোটিয়া দলপতি সেঞ্চুরির মাত্র চার রান বাকি থাকতেই দল জিতে যায়। তিনি ১০৩ বলে ১০ চার আর ১ ছয়ে ৯৬ রানে অপরাজিত থাকেন। ৩৭.২ ওভারেই সাউথ আফ্রিকা শ্রীলংকার দেওয়া টার্গেট পুরন করে ফেলে।

যদিও এই জয়ে সাউথ আফ্রিকা সেমিফাইনালে যেতে পারবে না। তবে শ্রীলংকার সামনে সেমিফাইনালে যাওয়ার সুযোগ ছিল। কিন্তু সাউথ আফ্রিকার সাথে হেরে শ্রীলংকার সেমিফাইনালে যাওয়ার আশা কমে গেল। সাউথ আফ্রিকা ৬ জুলাই বিশ্বকাপে নিজেদের শেষ ম্যাচ খেলবে অস্ট্রেলিয়ার সাথে। আর শ্রীলংকা এখন তাদের দুই ম্যাচ ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ভারতের সাথে খেলবে ১ ও ৬ জুলাই।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ-
শ্রীলংকাঃ ২০৩ (৪৯.৩ ওভার) আভিষেক ফারনান্দো ৩০, কুশাল পেরেরা ৩০

প্রিটোরিয়াস ৩/২৫, মরিস ৩/৪৬, রবাদা ২/৩৬

দক্ষিন আফ্রিকাঃ ২০৬/১ (৩৭.২ ওভার) আমলা ৮০*, ডু প্লেসিস ৯৬*

লাথিস মালিঙ্গা ১/৪৭

ফলঃ সাউথ আফ্রিকা ৯ উইকেটে জয়ী

ম্যান অব দ্য ম্যাচঃ ডওইন প্রিটোরিয়াস।

Mustafa Shakir

আরও পড়ুনঃ শ্রীলংকার দেওয়া সহজ টার্গেটে জয়ের পথে দক্ষিন আফ্রিকা
ইংল্যান্ডকে ২১২ রানেই গুড়িয়ে দিলেন মালিঙ্গা!
প্রোটিয়াদের হারিয়ে শেষ চারের স্বপ্ন বাচিয়ে রাখল পাকিস্তান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Your Rating:05

Thanks for submitting your comment!