বিশ্বকাপে একের পর এক রেকর্ড গড়েই যাচ্ছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ব্যাট-বল দুই বিভাগেই আলো ছড়াচ্ছেন তিনি। ব্যাটিংয়ে এখন পর্যন্ত ৬ ম্যাচ খেলে ৪৭৬ রান সংগ্রহ করেছেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান ও বোলিংয়ে শিকার করেছেন ১০ উইকেট।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিনি ব্যাটিংয়ে ৫১ রান ও বোলিংয়ে ৫ উইকেট শিকার করে ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন। মূলত এক সাকিব আল হাসানের কাছেই হেরে যায় ম্যাচের আগে থেকে হুংকার দিতে থাকা আফগানিস্থান দল।

সেমিফাইনালে উটার স্বপ্ন পুরনের জন্য আফগানিস্তানকে হারাতেই হত বাংলাদেশ। তার অলরাউন্ডিং পারফরম্যান্সের নৈপুণ্যে সেমিফাইনালের কাছাকাছি আছে বাংলাদেশ। ছয় ম্যাচের মধ্যে টাইগারদের তিন জয়ের প্রতিটিতেই ম্যাচসেরা হয়েছেন সাকিব আল হাসান। এমনকি দলের হারের দিনেও নিজের পারফরম্যান্স ধরে রেখেছিলেন এই অলরাউন্ডার।

এখনও বিশ্বকাপে বাংলাদেশের দুটি ম্যাচ রয়ে গেছে। তবে এরই মধ্যে সাকিব বিশ্বকাপের এক আসরে ৪০০ রান ও ১০ উইকেট তুলে নেয়ার নজির স্থাপন করেছেন। এ রেকর্ড সাকিব আল হাসান এর ছাড়া আর কারো নেই।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচেই একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে বিশ্বকাপ ইতিহাসে ১০০০ রান এবং ৩০ উইকেট শিকারের কীর্তি গড়েছেন তিনি।

বিশ্বকাপের মত আসরে তাঁর এই ধারাবাহিক পারফরর্ম্যান্সে উচ্ছশিত অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি টম মুডি। তার মতে, সাকিব সর্বকালের সেরা অলরাউন্ডার এর একজন। কেন সাকিব আল হাসান সেরাদের কাতারে সেজন্য পরিসংখ্যানের দিকে থাকানোর কথা বলেছেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে লিখেছেন তিনি, ‘চোখ এড়িয়ে যাচ্ছে কিন্তু সাকিব ক্রিকেট বিশ্বকে বলে যাচ্ছে, সে সর্বকালের সেরা অলরাউন্ডারদের একজন। পরিসংখ্যান মিথ্যে বলে না।’

বিশ্বকাপে ৭ ম্যাচ খেলে সাকিব আল হাসান সেরা পাঁচ ব্যাটসম্যানদের তালিকায় আছেন। ৭ ম্যাচে তাঁর রান সংখ্যা ৪৭৬ রান। আর অলরাউন্ডিং পারফরম্যান্সে সবার উপরের তালিকায় আছেন তিনি।

Mustafa Shakir

আরও পড়ুনঃ বাংলাদেশকে নিয়ে ডুবা হলো না আফগানিস্থানের

শেষ চারে খেলার সম্ভাবনা এখনও শেষ হয়নি বাংলাদেশের!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Your Rating:05

Thanks for submitting your comment!