বিশ্বকাপে আজ শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। অস্ট্রেলিয়ার সাথে জিতে সেমিফাইনালের পথ সুগম করতে চায় বাংলাদেশ। সংবাদ সম্মেলনে মাশারাফি বিন মর্তুজা অস্ট্রেলিয়ার সাথে আজকের ম্যাচ নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

বাংলাদেশ বনাম অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে বৃষ্টির শঙ্কা আছে। বৃষ্টিতে ম্যাচ পরিত্যাক্ত হলে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া সমান এক পয়েন্ট করে পাবে। তবে বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা জানান ভাগ্যে নয় ম্যাচ জিতেই সেমির পথে যাত্রা করতে চান তারা। জয় ছাড়া কিছুই ভাবছেন না মাশরাফি।

ইতিমধ্যে বৃষ্টির কারণে বিশ্বকাপের গুরুত্বপূর্ণ বেশি কয়েকটি ম্যাচ পরিত্যাক্ত হয়েছে। বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার ম্যাচটিও বৃষ্টির কারনে পণ্ড হয়েছে। ম্যাচটি যদি পরিত্যক্ত না হত আর যদি বাংলাদেশ শ্রীলংকাকে হারাতে পারত তাহলে বাংলাদেশের সেমিফাইনালের পথ আরেকটু সহজ হত।

ঐ ম্যাচে বাংলাদেশ জয়ের ব্যাপারে দারুন আশাবাদী ছিল। কারণ বাংলাদেশ বনাম শ্রীলংকা ম্যাচে বাংলাদেশই ফেভারিট ছিল। তবে এ ম্যাচকে পিছনে ফেলে বাংলাদেশ ওয়েস্টইন্ডিজকে হেসে খেলেই হারিয়ে দিয়েছে। আজকের ম্যাচে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার পতিপক্ষ হতে পারে বৃষ্টি।

নটিংহামের আবহাওয়া অনুযায়ী ম্যাচ চলাকালীন হানা দিতে পারে বৃষ্টি। তবে বৃষ্টির কারনে ম্যাচ পরিত্যাক্ত হতে পারে এমন সম্ভাবনা কম। বৃষ্টি হোক আর নাই হোক সেমিফাইনালের দৌড়ে টিকে থাকতে হলে আজকের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে বাংলাদেশ হারাতে হবে। আর মাশরাফিও সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানালেন।

মাশরাফি বলেন “আমরা এখন যে অবস্থায় দাঁড়িয়ে, সেখানে ১ পয়েন্ট পেলে তা যে আমাদের খুব উপকারে আসবে, তা কিন্তু নয়। ২০১৫ বিশ্বকাপে যে অবস্থায় ছিলাম, সেখানে ১ পয়েন্ট পেয়ে লাভ হয়েছে। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ১ পয়েন্ট পেয়েও লাভ হয়েছে। আর যদি ৩-৪ ওভার খেলা হতো তাহলে হেরে যেতাম।”

“বৃষ্টি হলে, সেখান থেকে ১ পয়েন্ট পেলে তা যেন ভাগ্যের সহায়তা পায়। তবে জিতে ২ পয়েন্ট পেলে টূর্নামেন্টে ভালভাবে টিকে থাকতে পারব। টূর্নামেন্টে টিকে থাকতে তাই জয় দরকার।”

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জিততে হলে সববিভাগেই সেরাটা দিয়েই জয় ছিনিয়ে আনতে হবে বাংলাদেশকে।

মাশরাফি বলেন, “যদি একটা বিভাগে ভালো করি, বাকি দুইটাতে না করি তাহলে তাদের বিপক্ষে জেতা সম্ভব না। অস্ট্রেলিয়া যদি ৭০ ভাগ খেলে আমাদের ১০০ ভাগ খেললে তখন সম্ভব হবে। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ১০ ভাগ ভালো খেলে ম্যাচ জেতা কঠিন। কমপক্ষে ব্যবধান থাকতে হবে ৩০ থেকে ৪০ ভাগ। আমাদের এতটাই ভালো খেলতে হবে তাদের বিপক্ষে।”

মানসিকভাবেও অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটাররা এগিয়ে আছে বলে মাশরাফি জানান, “সাকিব একটা কথা বলেছিল, জন্মগত খেলোয়াড়ের একটা ব্যাপার আছে যেটা অস্ট্রেলিয়ার সাথে আমাদের একাট ফারাক করে দেয়। ওই জায়গাগুলো শারিরীক ও মানসিকভাবে সচেতন থেকে যদি কাভার করা যায়। কেননা এসব ছোটখাটো জিনিসি গুলো ম্যাচ জিতিয়ে দেয়। তিন বিভাগেই আমাদের এগিয়ে থাকতে হবে।”

Mustafa Shakir

আরও পড়ুনঃ ওয়েস্টইন্ডিজের বিপক্ষে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী বাংলাদেশ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Your Rating:05

Thanks for submitting your comment!