দুই দিন আগে শ্রীলংকা দলের টিম ম্যানেজমেন্ট আইসিসির কাছে অভিযোগ করছিল বিশ্বকাপে অন্যান্য দেশগুলোর তুলনায় শ্রীলঙ্কাকে তাদের প্রাপ্য সুযোগ-সুবিধা কম দেওয়া হচ্ছে। আইসিসিকে অভিযোগ যানিয়ে মেইল করেছিল শ্রীলংকা। তবে শ্রীলংকার এমন অভিযোগ আমলে নেয়নি আইসিসি।

লংকান দলের ম্যানেজার দুইদিন আগে উইকেট নিয়ে অভিযোগ করছিলেন। তিনি বলেন, আমাদের চারটি ম্যাচই ব্রিস্টল এবং কার্ডিফে হয়েছে এবং এই ম্যাচগুলোতে আইসিসি আমাদের জন্য অন্য দলের তুলনায় ভিন্ন উইকেট তৈরি করছে।

যেখানে অন্যান্য দলের বেলায় উইকেট ব্যাটিং বান্ধব এবং হাইস্কোরিং উইকেটে খেলা হয় সেখানে আমাদের ক্ষেত্রে উল্টো। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে (গত শনিবার) যে ম্যাচটি হবে ওভালে, ঐটিও খুব সম্ভব সবুজ উইকেটেই হবে। এই নিয়ে অভিযোগ করছি না আমরা তবে এটি এক ধরণের অবিচার। যেখানে নির্দিষ্ট দলকে সুবিধা দেওয়া হচ্ছে।

তবে উইকেট নিয়ে শ্রীলংকার অভিযোগ সম্পর্কে আইসিসি বলেছে, ‘আইসিসির ইভেন্টগুলোতে আমরা আয়োজক ভেন্যুর কিউরেটরের সাথে একজন পিচ পরামর্শককে যুক্ত রাখি যিনি স্বাধীন। বিশ্বকাপেও এর ব্যত্যয় ঘটছে না। ইংলিশ কন্ডিশনে এখন পর্যন্ত আমরা যেসব উইকেট দেখতে পেলাম তাতে আমরা খুশি।’

শ্রীলংকা ম্যানেজমেন্ট অভিযোগ করছিল হোটেলে সুইমিংপুল না থাকা ও অনুশীলনের অপর্যাপ্ততা নিয়ে। লংকান টিম ম্যানেজার আশান্থা ডি বলছিলেন, কার্ডিফে অনুশীলন ব্যবস্থায়ও অসন্তোষজনক। অনুশীলনের জন্য তারা তিনটি নেট দেওয়ার বদলে দেওয়া হয়েছে দুইটি নেট। শুধু তাই নয় ব্রিস্টলের হোটেলে সুইমিং পুলের ব্যবস্থাও রাখা হয়নি। যেটা কিনা প্রত্যেকটা দলের ফাস্ট বোলারদের জন্য জরুরী।

শ্রীলংকার টিম হোটেলে সুইমিংপুল না থাকা ও অনুশীলনে নেট কম দেওয়ার অভিযোগ আইসিসি নাকচ করে দেয়। এতে আইসিসির ভাষ্য ছিল, ‘এই ইভেন্ট আয়োজনের চার বছরের পরিকল্পনায় আমরা প্রত্যেকটি দলের সাথেই যোগাযোগ করেছি যাতে তাদের সন্তুষ্টি নিশ্চিত হয়। আমাদের পরিকল্পনার কেন্দ্রেই ছিল এটা যে প্রত্যেক দল সমান সুবিধাদি পাচ্ছে এবং আসরে নিজেদের সেরা প্রস্তুতি নিতে পারছে।’

Mustafa Shakir

আরও পড়ুনঃ আইসিসির কাছে মেইল করে শ্রীলংকার অভিযোগ

অ্যারন ফিঞ্চের সেঞ্চুরিতে শ্রীলংকাকে সহজেই হারাল অস্ট্রেলিয়া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Your Rating:05

Thanks for submitting your comment!