টানা তিন ম্যাচ হেরে বিশ্বকাপের লড়াইয়ে অনেকটা পিছিয়ে দক্ষিন আফ্রিকা। প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের সাথে, দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশের সাথে ও তৃতীয় ম্যাচে ভারতের সাথে হেরে যায় শিরোপা প্রত্যাশী ফাফ ডু প্লেসিসের দল।

বিশ্বকাপের অষ্টম ম্যাচে সাউদাম্পটনে অনুষ্টিত ম্যাচে দক্ষিন আফ্রিকাকে ৬ উইকেটে হারিয়ে টুর্নামেন্টে দারুণ শুরু করে ভারত। অপরদিকে টানা হার থেকে যেন বের হতেই পারছেনা প্রোটিয়ারা।

বিশ্বকাপের এখন পর্যন্ত তিনটি ম্যাচ খেলে জয়ছাড়া দক্ষিন আফ্রিকা দল। অপরদিকে ভারত বিশ্বকাপে খেলেছে একটি মাত্র ম্যাচ। বিশ্বকাপে যেখানে সব দল মোটামুটি দুই থেকে তিন ম্যাচ খেলে ফেলেছে।

ভারত সেখানে মাত্রই টুর্নামেন্ট শুরু করেছে। এ নিয়ে অনেক সমালোচনার মুখোমুখি হতে হয়েছে আইসিসিকে। আইসিসির বিরুদ্ধে ভারতকে সুবিধা দেওয়ার অভিযোগ উটেছে। বিশ্বকাপের আগে ভারতের খেলোয়াড়েরা টানা আইপিএল খেলে আসার কারনে ক্লান্ত ছিল। আইসিসি তাই বিশ্বকাপের সুচি পরিবর্তন করে ভারতকে সুবিধা দিয়ে আসছে বলে অভিযোগ আছে।

এ নিয়ে কয়েকদিন আগে সাবেক কিংবদন্তী ক্রিকেটার জ্যাক ক্যালিসও মন্তব্য করেছেন। নিজ দেশের খেলোয়াড়েরা টানা ম্যাচ খেলার কারনে পারফরম্যন্সেও এর প্রভাব পরবে বলে মনে করেন তিনি। সুচি পরিবর্তনের জন্য ভারতকে সুবিধা দিচ্ছে আইসিসি বলে অভিযোগ করেন তিনি। অপরদিকে তাঁর নিজ দল সহ অন্য দলগুলো এই সুচির কারনে অসুবিধায় পরবে বলেন এই কিংবদন্তী।

এদিকে গত বুধবারের ম্যাচে ভারত দক্ষিন আফ্রিকাকে বুমরার বোলিং ও রোহিতের শতকে ৬ উইকেটের সহজ জয় তুলে নেয়। দু দলই বিশ্বকাপ শিরোপার অন্যতম দাবিদার। একেত্রে দক্ষিন আফ্রিকার চেয়ে আগিয়ে আছে ভারত।

ইতিমধ্যে দক্ষিন আফ্রিকা তিন হারে বিশ্বকাপের আসরে অনেক পিছিয়ে পড়েছে। অপরদিকে ভারত টুর্নামেন্ট শুরু করেছে দুর্দান্ত ভাবে।

টসে জিতে দক্ষিন আফ্রিকার অধিনায়ক প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু ব্যাটিং ব্যর্থতায় দক্ষিন আফ্রিকার ইনিংস বেশিদূর যেতে পারেনি। নির্ধারিত ৫০ ওভার খেলে মাত্র ২২৭ রান করতে সক্ষম হয় দক্ষিন আফ্রিকা।

ভারতের চাহাল একাই তুলে নেন ৪ উইকেট। বিনয় কুমার ও বুমরাহ নেন ২ উইকেট ১টি উইকেট লাভ করেন কুলডিপ য়াদব। মূলত চাহালই দক্ষিন আফ্রিকার ব্যাটিং লাইনাআপে ধস নামান।

দক্ষিন আফ্রিকার হয়ে সর্বোচ্চ রান করেন ক্রিস মরিস। ৩৪ বলে ৪২ রান করেন এ অলরাউন্ডার। ডু প্লেসিস করেন ৩৮ রান, ডেবিড মিলার ৩১ ও রাবাদা ৩১ রান করেন। ৫০ ওভার শেষে দক্ষিন আফ্রিকা ৯ উইকেটে ২২৭ রান করে।

২২৮ রানের সল্প টার্গেটে নেমে রোহিত শর্মার শতকে ভারত ছয় উইকেটের জয় পায়। এছাড়া ধোনি ৩৪, রাহুল ২৬ রান করেন। ম্যান অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন রোহিত শর্মা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর-

দক্ষিন আফ্রিকাঃ ২২৭/৯ (৫০ ওভার)

মরিস ৪২, ডু প্লেসিস ৩৮

চাহাল ৫১/৪, বুমরাহ ৩৫/২

ভারতঃ ২৩০/৪ (৪৭.৩ ওভার)

রোহিত ১২২, ধোনি ৩৪

রাবাদা ৩৯/২

লেখকঃ সাকির আহমদ

আরও পড়ুনঃ প্রথম ম্যাচেই শক্তিশালী দক্ষিন আফ্রিকাকে হারাল বাংলাদেশ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Your Rating:05

Thanks for submitting your comment!